মোঃ শান্ত খান ঢাকা জেলা প্রতিনিধি. ঢাকার ধামরাইয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবসে কেক কাটার মঞ্চে এক যুবককে ঘুষি মারার অভিযোগ উঠেছে পৌরসভার মেয়র গোলাম কবির মোল্লার বিরুদ্ধে। মেয়রের ঘুষির পরে ওই যুবককে মারধর করেন স্থানীয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরাও।

আজ বৃহস্পতিবার (১৭ মার্চ) দুপুরে উপজেলার ধামরাই পৌরসভার যাত্রাবাড়ী মাঠে উপজেলা আওয়ামী লীগের আয়োজিত অনুষ্ঠানে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার একটি ভিডিও ও ছবি এই প্রতিবেদকের হাতে রয়েছে।

ওই ভিডিও ও ছবিতে দেখা যায়, পাঞ্জাবি পরা ওই যুবকের ঘাড়ের ওপরের কলার ধরে রেখেছেন ধামরাই উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহ্বায়ক সারোয়ার মাহবুব তুষার। আর সামনের কলার ধরে তাকে পেটে ঘুষি মারছেন পৌর মেয়র গোলাম কবির মোল্লা। এ সময় হাতজোড় করে যুবককে নিজেকে ছাড়িয়ে নিতে দেখা যায়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন ও শিশু দিবস উপলক্ষে কেক কাটা ও খাবার বিতরণের জন্য ওই অনুষ্ঠানটি আয়োজন করা হয়। সেখানে খাবার কম পরায় ওই যুবক বিষয়টি মেয়র গোলাম কবির মোল্লাকে জানাতে মঞ্চে ওঠেন। এ সময় ওই কথা বলার সঙ্গে সঙ্গে উত্তেজিত হয়ে মেয়র যুবককে কলার ধরে ফেলেন। একইসময় ওই যুবককে পেছন থেকে ধরে ফেলেন সারোয়ার মাহবুব তুষারও। পরে দুজনই তাকে মারতে থাকেন। এছাড়া মেয়র ছেড়ে দেয়ার পর মঞ্চ থেকে নামিয়েও যুবককে মারধর করেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

আবুল হোসেন নামে এক প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, ওই ছেলেটা (ভুক্তভোগী) খাবার কম পড়ার কথা বলতে গিয়েছিলো। কিন্তু কিছু না শুনেই মেয়র তাকে মারতে শুরু করে।

এ বিষয়ে ধামরাই উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহ্বায়ক সারোয়ার মাহবুব তুষারকে ফোন করলে সাংবাদিক পরিচয় পেয়ে তিনি কল কেটে দেন।

ধামরাই পৌরসভার মেয়র গোলাম কবির মোল্লার কাছে জানতে চাইলে তিনি কিছু জানেন না বলে মন্তব্য করেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে