খুঁড়তে তাড়াহুড়ো, মেরামতে ধীরগতি

0

পরিমল কুমার পরাণ: রাস্তা খুঁড়াখুঁড়িতে চরম দুর্ভোগে পোস্তগোলা বাসী। পোস্তগোলা – ফরিদাবাদ রাস্তাটির সংস্কারকাজের কারনে বন্ধ রয়েছে দীর্ঘ দিন। এতে বন্ধ রয়েছে পরিবহণ চলাচলও। সামান্য বৃষ্টি এলেই চরম দুর্ভোগে পড়েন এ রাস্তায় চলাচলরত পথচারীরা।

গত জুলাই মাস থেকে শুরু হয়েছে পোস্তগোলা করিমুল্লারবাগ এলাকার শ্বশানঘাট রাস্তাটির পয়োনিষ্কাশনের কাজ। কিন্তু সংস্কারকাজের কিছু অংশ শেষ হলেও বাকি কাজের কোন অগ্রগতি নেই। ফলে বিপাকে পড়েছেন এখানকার লৌহ ব্যবসায়ীসহ সাধারণ মানুষ। চলাচল করতে পারছে না কোন পণ্যবাহী পরিবহনও। এখানকার সরকার আয়রণ ট্রেডার্স’র মোঃ আপেল জানান, সংস্কারকাজের ধীর গতির কারণে সমস্যা তো হচ্ছেই। মালামান আনা-নেওয়া করতে চরম ভোগান্তি হচ্ছে। তবে সরকারের কাজ ধৈর্য ধরা ছাড়া আমাদের উপায় নাই।

এ দিকে শ্বশানঘাট এলাকার পোস্তগোলা- ফরিদাবাদ প্রধান রাস্তাটি খুঁড়াখুঁড়ির কারনে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে ফলে পরিবহণ চলাচল বন্ধ রয়েছে। এ রাস্তায় প্রতিদিন চলাচল করে প্রায় হাজার খানেক হালকা ও ভারি যানবাহন। চলাচল করে কয়েক হাজার পথচারী। এখানকার এম,এম আয়রণ স্টোরের মালিক রাসেল ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ভেকু দিয়ে ভাঙতে সময় লাগে ১০ মিনিট কিন্তু কাজ শেষ করতে পার হয়ে যায় কয়েকমাস। রাস্তা ভাঙার কারনে গাড়ি ঢুকতে পারেনা। ফলে অনেক দুরে মালামাল নামাতে হয়। এতে শ্রমিক খরচ পড়ে বেশি।

রাস্তায় চলাচলরত সদরঘাট থেকে লেগুনায় আসা পথচারী হোসনেআরা বলেন, একদিকে প্রচন্ড গরম অন্যদিকে বোঝা নিয়ে হেঁটে চলাচল খুবই কষ্টকর। কথা হয় এক রোগির স্বজন হরিনাথের সাথে। তিনি জানান, এই পথ দিয়ে বাবুবাজার মিডফোর্ড হাসপাতালে রোগি নিয়ে যাচ্ছি। কিন্তু রিকশাসহ কোন যানবাহন চলাচল করতে না পারায় পড়েছি চরম বিপাকে।

এ ব্যাপারে ৫৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাজী মোঃ মাসুদ ফক্সনিউজ বিডিকে বলেন, এ সব সংস্কারকাজ চলমান। রাস্তাগুলো খুবই গুরুত্বপূর্ণ। দিনরাত ২৪ ঘন্টা কাজ চলছে। আশা করি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই সংস্কারকাজ শেষ হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে