দোহারের ঘাটে বুয়েট শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার

0

শান্ত খান,ঢাকাঃ ঢাকার দোহারের মৈনট ঘাট এলাকায় পদ্মা নদীতে নিখোঁজ বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী তারিকুজ্জামান সানির (২৮) মরদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস।

শুক্রবার (১৫ জুলাই) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে মৈনট ঘাট থেকে ওই বুয়েট শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পরে মরদেহ দোহার থানায় হস্তান্তর করা হয়।

নিহত সানি রাজধানীর হাজারীবাগ এলাকায় একটি ভাড়া বাসায় থাকতেন। শরীয়তপুর জাজিরার বেপারীকান্দিতে নিহত সানির গ্রামের বাড়ি। সানি বুয়েটের স্থাপত্য বিভাগের পঞ্চম সেশনের ছাত্র ছিলেন।

ফায়ার সার্ভিস অধিদপ্তরের ডিউটি অফিসার রোজিনা আক্তার জানান, গত রাতে আমরা খবর পাই, মৈনট ঘাটে পদ্মা নদীতে বুয়েটের এক শিক্ষার্থী নিখোঁজ হয়েছেন। সঙ্গে সঙ্গেই ঘটনাস্থলে ডুবুরি দল পাঠানো হয়। রাতে অনেক খোঁজাখুঁজির পরও সানির সন্ধান পাওয়া যায়নি। পরে আজ সকাল ১১টা ২৬ মিনিটে মৈনট ঘাট থেকে ওই বুয়েট শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। মরদেহ দোহার থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

দোহার থানার ওসি মোস্তফা কামাল বলেন, বৃহস্পতিবার ১৫/১৬ জন যুবক এখানে ঘুরতে আসেন। সন্ধ্যার পর সানি নামের ওই শিক্ষার্থী নিখোঁজ হন। স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে রাতেই ঘটনাস্থলে দোহার থানা পুলিশ পৌঁছায়।

তিনি বলেন, সুরতহাল শেষে বুয়েট শিক্ষার্থীর মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে