রাস্তায় ‘সালাম’ দিয়ে সর্বস্ব লুটে নিতেন তাঁরা

0

নিউজ ডেস্ক: আসসালামু আলাইকুম’, যার অর্থ আপনার ওপর শান্তি বর্ষিত হোক। ইসলাম ধর্মের এই অভিবাদনসূচক বাক্যই এখন ছিনতাই চক্রের হাতিয়ার। ব্যস্ত সড়কে চলার পথে সাধারণ মানুষকে সালাম দিয়ে থামাত চক্রের সদস্য। এরপর দূরে দাঁড়িয়ে থাকা আরেকটি দল এসে ঘিরে ধরত। হুমকি ও ভয়ভীতি দেখিয়ে সর্বস্ব লুটে নিত।

গত ২১ আগস্ট রাজধানীর আগারগাঁওয়ে ডাক ভবনের সামনে সালাম দিয়ে পথ আটকে লুৎফর রহমান নামে একজনের কাছ থেকে ৮০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয় চক্রটি। এ ঘটনায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। শেরেবাংলা নগর থানায় দায়ের করা এই মামলা তদন্তের ধারাবাহিকতায় দুজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন মো. পিন্টু মিয়া (৩২) ও মো. সুমন (৩৫)।

এইচ এম আজিমুল হক বলেন, ‘রাজধানীতে নতুন এই উপদ্রবের দেখা মিলেছে। চক্রের সদস্যরা ধর্মীয় বিশ্বাসকে পুঁজি করে টার্গেট ব্যক্তিকে সালাম দিয়ে পথে আটকায়। সাধারণত সালাম দিলে পরিচিত ভেবে মানুষ একটু থামে, চক্রের সদস্যরাও তাদের থামিয়ে সময়ক্ষেপণ করতে থাকে। আশপাশে তাদের অন্য সদস্যরা ঘাপটি মেরে থাকত। সুযোগ বুঝে তারাও তখন ওই টার্গেট ব্যক্তিকে ঘিরে ফেলে সঙ্গে যা আছে দিয়ে দিতে বলে। হুমকি দিয়ে কাজ না হলে অস্ত্র আছে বলে ভয়ভীতি দেখায়। এভাবে টার্গেট ব্যক্তির সবকিছু নিয়ে সটকে পড়ত তারা।’

ডিসি বলেন, ‘যেহেতু তাদের কাছে কোনো অস্ত্র থাকত না, সাধারণ মানুষের মতোই ঘোরাফেরা করত। তাই তাদের চিহ্নিত করে গ্রুপটিতে ধরা কঠিন ছিল।’

সর্বশেষ গত ২১ আগস্ট আগারগাঁও ডাক ভবনের সামনে এক ব্যক্তির কাছ থেকে এভাবে ৮০ হাজার টাকা লুটের ঘটনায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। মামলাটি তদন্তে নেমে সিসিটিভি ফুটেজ পর্যালোচনা করে দুজনকে শনাক্ত করে গ্রেপ্তার করা হয়। তারা দুজনই ঘটনার সঙ্গে নিজের সম্পৃক্ততার বিষয়টি স্বীকার করেছে বলে জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

অন্যদিকে ডিসি এইচ এম আজিমুল হক জানান, মঙ্গলবার (৩০ আগস্ট) কারওয়ান বাজার এলাকায় পৃথক অভিযান চালিয়ে র‍্যাব সদস্য পরিচয়ে চাঁদাবাজির অভিযোগে মো. এনায়েত শেখ (৩৬) ও আব্দুর রহমান মুন্সি (৪৬) নামে আরও দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়, যাঁদের সঙ্গে ওয়াকিটকি থাকত এবং নিজেদের র‍্যাব সদস্য হিসেবে পরিচয় দিতেন। তাঁরা কারওয়ান বাজার মাছের আড়তে শ্রমিকদের কাছে ১০ হাজার টাকা করে চাঁদা দাবি করেন। টাকা না দিলে বিভিন্ন ভয়ভীতি প্রদর্শন করেন। বিষয়টি শ্রমিকেরা পুলিশকে জানালে ভুয়া দুই র‍্যাব সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এ ধরনের প্রতারণা এড়াতে মানুষকে সচেতন হওয়ার আহ্বান জানিয়ে পুলিশের এই কর্মকর্তা বলেন, পথে কেউ সালাম দিয়ে সময়ক্ষেপণ করতে চাইলে যেন এ বিষয়ে সতর্ক থাকেন। কোনোভাবেই দাঁড়ানো যাবে না বা এমন হলে পুলিশকে বিষয়টি জানাবেন।

এক প্রশ্নের জবাবে পুলিশের এই কর্মকর্তা বলেন, অনেক প্রতারক ওয়াকিটকি সঙ্গে রেখে নিজেদের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য পরিচয় দিয়ে অপকর্ম চালিয়ে আসছে। এ বিষয়েও সচেতন থাকতে হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে