তানোরে প্রতিপক্ষের মারপিটে মৃত্যুর মুখে এক বৃদ্ধ

0

তানোর প্রতিনিধিঃ রজশাহীর তানোরে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলা ও মারপিটে গুরুতর আহত অবস্থায় মৃত্যুর মুখে কাতরাচ্ছেন এক বৃদ্ধ। ঘটনাটি ঘটেছে তানোর উপজেলার সরনজাই খাঁ পাড়া গ্রামে।

এঘটনায় সোমবার রাতে আহতের পুত্র তরিকুল ইসলাম বাদি হয়ে ৪জনকে আসামী করে তানোর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ ও এলাকাবাসী সুত্রে জানা গেছে, তানোর উপজেলার সরনজাই ইউপির সরনজাই খাঁ পাড়া গ্রামের ইয়ানুছ আলীর পরিবারের সাথে দীর্ঘদিন ধরে একই গ্রামের জালাল উদ্দীনের পরিবারের মধ্যে দ্বন্দ চলে আসছিলো।

এরই সুত্র ধরে গত ১৪ এপ্রিল বৃহস্পতিবার বিকালে ওই গ্রামের ওয়াক্তিয়া মসজিদে যাওয়ার রাস্তাকে কেন্দ্র করে খাঁ পাড়া ওয়াক্তিয়া মসজিদের সামনে ইয়ানুছ আলী ও জালাল উদ্দীনের মধ্য কথা কাটাকাটি হয়।

এর একপর্যায়ে জালাল উদ্দীন ইয়ানুছ আলীর মাথায় ও মুখের উপর ইট দিয়ে মারলে ইয়ানুছ আলীর মাথা ফেটে যায় এবং দাঁত ভেঙ্হে যায়।এসময় ইয়ানুছ আলী মাটিতে লুটিয়ে পড়লে জালালের পুত্র মোস্তাফিজুর ও মোক্তার হোসেন এবং কন্যা হাফিজা ইয়ানুছকে লাঠি ও লোহার রড় দিয়ে বেধড়ক ভাবে মারপিট করেন।

এসময় ইয়ানুছকে বাচাতে এগিয়ে আসলে ইয়ানুছ আলীর বোন নাসিমা ও ভাইয়ের স্ত্রী রওশয়ারা এগিয়ে আসলে তাদেরকেউ বেধগক মারপিট করেন জালাল ও তার কন্যা ও পুত্ররা।

পরে গ্রামবাসীরা এগিয়ে আসলে জালাল ও কন্যা ও পুত্ররা পালিয়ে যায়। এসময় গুরুতর ও রক্তাক্ত জখম অবস্থায় গ্রামবাসী ইয়ানুছকে সেখান থেকে মুমুর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে তানোর উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে আসেন।

ইয়ানুছের অবস্থা আশংখা জনক হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসটাতালে রেফার্ট করলে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এবং তার বোন ও ভাইয়ের বউকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়।

এব্যাপারে তানোর থানার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কামরুজ্জামান মিয়া বলেন, ঘটনার ৪ দিন পর গত সোমবার অভিযোগ ইয়ানুছের পুত্র বাদি হয়ে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন তদন্ত সাপেক্ষে বিষয়টি নিয়ে আইনহত ব্যবস্থা গ্রহন করা হচ্ছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে