জাল দলিল করে জমি দখলের চেষ্টায় হাসান আলী নামের এক ব্যাক্তি কারাগারে

0

স্টাফ রিপোর্টার : কেউ জাল দলিল করলে ২ বছর এবং মালিকানার অতিরিক্ত জমি রেজিস্ট্রি করে নিলে ৫ বছর কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে। কারও জমি জোরপূর্বক দখল করে নিলে জেল-জরিমানা হবে ৩ বছর। এভাবে ৩০টি ধারায় পৃথকভাবে বিভিন্ন মেয়াদে জেল-জরিমানার বিধান রেখে দেশে প্রথমবারের মতো ভূমি অপরাধ প্রতিরোধ আইন হচ্ছে।

শাস্তি প্রদানের ক্ষেত্রে কারাদণ্ডের পাশাপাশি জরিমানার বিধান রাখা হয়েছে। ‘ভূমি অপরাধ প্রতিরোধ ও প্রতিকার আইন-২০২২’ শিরোনামে নতুন এ আইনের খসড়া ইতোমধ্যে চূড়ান্ত করেছে ভূমি মন্ত্রণালয়।

এমন আইন থাকা সত্ত্বেও কিছু মানুষ জাল দলিল বানিয়ে অন্যের জমি হাতিয়ে নেওয়ার চেষ্টা কোরেই যাচ্ছে।

এমনই এক অভিযোগ এসেছে হাসান আলী নামের এক ব্যাক্তির বিরুদ্ধে । এবিষয়ে হাসান আলীর বড়ো বোন জান্নাতুল নেসা (৪২) জানান আমার পিতার জীবদ্দশায় আমার ভাই হাসান আলী জমি জায়গা দেখাশুনা করতেন। কিন্তু আমার বাবা মৃত আবু বক্কর সিদ্দিক মারা যাওয়ার পরে আমাদের পৈত্রিক সম্পত্তি ভাগ বাটোয়ারার জন্য আমার ভাই কে বারবার অনুরোধ করলেও তিনি টাল বাহানা করতে থাকে।

সে বাবার মৃত্যুর সুযোগ কাজে লাগিয়ে একটি জাল দলিল তৈরি করে, যার নাম্বার-২৪১৪৩। পরে সেই জাল দলিল জেনুইন হিসাবে ব্যবহার করে পরা সহকারী কমিশনার (ভূমি) অফিসে খারিজের জন্য গত ৯/৪/২০২১ ইং তারিখে আবেদন করলে খারিজ কেস নম্বর ১৪৩১৪/৯-১/২০-২১ রুজু হয়।

আমরা ভাবতেও পারিনি যে আমার আপন ভাই হাসান আলী সে আমাদের কাউকে না জানিয়ে একটি জাল দলিল তৈরি করে তার নামে মোট= ২.১৫০০ একর জমি লিখে নেবি।

বিষয় টা আমরা জানার পরে রাজশাহী জেলার দামকুড়া থানার মৃত আবু বক্কর সিদ্দিক এর ছেলে আমার ছোট ভাই হাসান আলী (৪০) এর নামে আমি বাদি হয়ে জেলা রাজশাহীর বিঙ্গ চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে একটি মামলা করি।

সেই মামলার জন্য সে গত বুধবার কোর্টে স্যালেন্ডার করে জামিনের জন্য আবেদন করলে কোর্ট তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠান।

এবিষয়ে সচেতন মহল জানান এ ঘটনার সঠিক তদন্ত করা উচিত।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে