চারঘাটে শিবপূজা ও নগ্ন পদযাত্রা অনুষ্ঠিত

0

চারঘাট প্রতিবেদক ঃ আজ (১৬ আগস্ট সোমবার) সকাল ১০টায় চারঘাট কেন্দ্রীয় কালী মন্দিরে শিব পূজা এবং মহাপূর্ন নগ্ন পদযাত্রা পূজা অনুষ্ঠিত হয়। চারঘাট কেন্দ্রীয় কালী মন্দির কতৃক আয়োজিত হিন্দুধর্মানুযায়ী শিব পূজা এবং মহাপূর্ন নগ্ন পদযাত্রা সুষ্ঠভাবে পরিচালনা করা হয়।

এই বিষয়ে মন্দির কমিটির সভাপতি বিল্পব কুমার রায় উল্লেখ করেন , শ্রাবণ মাসের প্রথম সোমবার থেকে এ কথা সকলেই জানেন যে শ্রাবণ মাসের সঙ্গে ভগবান শিবের গভীর সম্পর্ক রয়েছে। তাই সারা মাস জুড়ে শিব ভক্তরা আরাধনায় মেতে ওঠেন। তবে সোমবার শিবের আরাধনা করলে ভগবান শিব প্রসন্ন হন। তাই শ্রাবণ মাসে শিব পূজোর বিশেষ রীতি সারা দেশে প্রচলিত রয়েছে।

পুরাণ অনুযায়ী মনে করা হয় শ্রাবণ মাস শিবের অত্যন্ত প্রিয় মাস। তাই তাঁকে সন্তুষ্ট করতে তাঁর ভক্তরা কোনও ত্রুটি রাখেন না। উপবাস করে শিবের মাথায় গঙ্গা জল এবং দুধ ঢালেন শিব ভক্তরা। এই মাসে ভক্তি ভরে মহাদেবকে ডাকলে তিনি তুষ্ট হন ও ভক্তের মনোবাঞ্ছা পূরণ করেন। তাঁদের জীবনের সংকট বিষের মতো নিজের মধ্যে ধারণ করে মুক্তি দেন জরা এবং সমস্যা থেকে। তাই শ্রাবণ মাসের হিন্দু ধর্মে বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে,তারই ধারাবাহিকতায় আজ শ্রাবণের মাসের শেষ সোমবারে আমরা আয়োজন করেছি।

এছাড়াও মন্দির কমিটির সম্পাদক, প্রবীর তরফদার বলেন পুরাণে কথিত রয়েছে, শ্রাবণ মাসেই সমুদ্র মন্থন করেছিলেন দেবতা এবং অসুর। সেই সময় ভগবান শিব মন্থন থেকে ওঠা হলাহল বিষ পান করে ধারণ করেছিলেন কণ্ঠে। বিষের তীব্রতায় তাঁর কণ্ঠ নীল হয়ে যায় বলেই, শিবের আরেক নাম ‘নীলকণ্ঠ’। সেই সময় দেবী পার্বতী তাঁর স্তন দুগ্ধ পান করিয়ে দেবাদিদেবের সমস্ত জ্বালা নিবারণ করেছিলেন। এই ভাবেই সৃষ্টির রক্ষা করেছিলেন মহাদেব, তাই তাঁকে ‘সৃষ্টির রক্ষাকর্তা’ বলা হয়।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে